বৃহস্পতিবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং। ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। দুপুর ২:৪৪








প্রচ্ছদ » আইন ও আদালত

পাকিস্তানে মহানবী (সঃ) কে ‘অবমাননা’ মামলায় খ্রিস্টান নারীর মৃত্যুদণ্ড বাতিল!

পাকিস্তানে গত ৯ বছর আগের ‘ইসলাম অবমাননার’ দায়ে এক নারীর ফাসির রায় বাতিল করেছে সেদেশের আদালত।  ৪৭ বছর বয়সী খামার শ্রমিক আসিয়া।

জানা যায় গত, ২০০৯ সালে খামারে কাজ করার সময় এক গরমের দিনে মুসলিম শ্রমিকদের গ্লাসে চুমুক দিয়ে পানি খাওয়ায় তার মুসলিম সহকর্মীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

তারা দাবি করে, আসিয়া যেহেতু মুসলিম নন, সেক্ষেত্রে গ্লাসটি ব্যবহারের অনুপযুক্ত হয়ে গেছে, সেটি ব্যবহার করা যাবে না। আসিয়াকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করারও দাবি জানায় তারা। তা প্রত্যাখ্যান করেন আসিয়া। সেসময় উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়।

পরে মুসলিম শ্রমিকরা দাবি করে, আসিয়া বিবি মহানবী হযরত মোহাম্মদকে (দ.) নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্য করেছেন। আসিয়া বিবি বরাবরই তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন।

উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হরেছেন বলে স্বীকার করলেও তার দাবি, তিনি ইসলাম অবমাননা করে কিছু বলেননি।আসিয়া পারবারিক জীবনে ৩ সন্তানের জননী। সেই মামলার রায় হয়েছে আজ।

আজ বুধবার (৩১ অক্টোবর) সকালে পাকিস্তান সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসারের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের বেঞ্চ যুগান্তকারী এই রায় ঘোষণা করেন।

পাশাপাশি ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের জেরে পাকিস্তানের ‘ব্লাসফেমি আইন’কে ব্যবহার করার সমালোচনা করেন তারা। নতুন এই রায়কে পাকিস্তানের বিচার বিভাগের ‘সাহসী’ রায় হিসেবে আখ্যা দিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান।

ইসলামী সংগঠনগুলোর হুমকি-ধামকির কারণে রায় ঘোষণা পিছিয়ে যায়। চরম ডানপন্থী পাকিস্তানি রাজনৈতিক দল তেহিরক-ই-লাব্বাইক (টিএলপি) দীর্ঘদিন ধরেই ব্লাসফেমি আইনের পক্ষে প্রচারণা চালিয়ে আসছে।

আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আগে থেকে হুঁশিয়ারি দিচ্ছিলো এই সংগঠন। তাদের বিবৃতির ভাষ্য, ‘তাকে যদি বিদেশে হস্তান্তর করার কোনও চেষ্টা করা হয় তাহলে তার পরিণতি হবে ভয়ঙ্কর।’

এদিকে, আজ বুধবার (৩১ অক্টোবর) আসিয়া বিবির বিরুদ্ধে রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদে ২৪ ঘণ্টা আগে থেকেই জোরদার করা হয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

বিচারপতিদের এলাকা ও কূটনৈতিক অঞ্চলগুলোতে আধা-সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়। সুপ্রিম কোর্টের এলাকায় মোতায়েন ছিল পুলিশের প্রায় ৩০০ সদস্য।

 

আরও পড়ুন>>> বিখ্যাত মনীষীদের ১০০ বাণী