বৃহস্পতিবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং। ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। দুপুর ১:৫৪








প্রচ্ছদ » শিক্ষা

প্রাথমিক শিক্ষিকাদের জন্য সুখবরঃ বদলি হয়ে যেতে পারবেন স্বামীর কাছে

ছত্র- ছাত্রীদের গড়ার সর্ব প্রথম ধাপ প্রাইমারি স্কুল । প্রাইমারি স্কুলে পুরুষ শিক্ষকের পাশাপাশি নরী শিক্ষিকাও থাকেন ।তবে তাদের নিয়ে অনেক ধরনের সমস্যা থকে তার মধ্যে অনত্যম স্বামীর বাসা থেকে অন্য স্থানের এক স্কুলে শিক্ষকতা  করা । তবে এবার তাদের জন্য এসেছে বড় সুখবর ।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক বদলি নীতিমালা-২০১৮ জারি করা হয়েছে। এতে বদলির হয়ে স্বামীর কাছে যাওয়াসহ বেশ কয়েকটি পরিবর্তন আনা হয়েছে।আগে স্বামীর নিজ জেলায় নারী শিক্ষকরা বদলি হতে পারলেও স্বামীর কর্মস্থল এলাকায় বদলি হতে অনেক জটিলতা পোহাতে হতো, যা ছিল অনেকটা দুঃসাধ্য কাজ। এ পরিবর্তনের ফলে মানবিক কারণসহ কয়েকটি ক্যাটাগরিতে যে কোনো সময়ে শিক্ষকরা বদলির আবেদন করতে পারবেন। ফলে স্বামীর কর্মস্থলের সঙ্গেই থাকতে পারবেন প্রাথমিক স্কুলের নারী শিক্ষকরা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আকরাম আল হোসেন স্বাক্ষরিত গত ৩০ অক্টোবর সরকারি প্রাথমিক শিক্ষক বদলি নির্দেশিকা-২০১৮ জারি করা হয়। তাতে এসব বিষয় তুলে ধরা হয়েছে।

নতুন বদলি নীতিমালায় দেখা গেছে, চাকরি পাওয়ার পর নারী শিক্ষকদের বিয়ে হলে স্বামীর কর্মস্থলের পার্শ্ববর্তী স্কুলে বদলি হতে পারবেন, প্রতিবন্ধী শিক্ষকদের স্থায়ী ঠিকানার পার্শ্ববর্তী এলাকার স্কুলে বদলি করা যাবে।

স্বামী মারা গেলে বা বড় কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে সুবিধামতো স্থানসহ বিশেষ কোনো কারণে বছরের যে কোনো সময় বদলি হওয়া যাবে। দুর্গম এলাকায় নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকরা চাকরির মেয়াদ দুই বছর পর নিজ এলাকায় বদলি হতে পারবেন।

এসব বদলির জন্য প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার ও বিভাগীয় উপ-পরিচালকের সুপারিশ প্রয়োজন হবে। জাতীয়করণ অনেক শিক্ষককে ভিন্ন জেলায় নিয়োগ দেয়া হয়েছে, তারা প্রেষণে নিজ জেলায় ৫ বছর পর বদলি হতে পারবেন।

তবে সাধারণ বদলির ক্ষেত্রে বছরের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত আবেদনের সময় নির্ধারিত রয়েছে।সহকারী শিক্ষক পদে চাকরির মেয়াদ ন্যূনতম ২ বছর পূর্ণ হলে এবং পদ শূন্য থাকলে আন্তঃউপজেলা/থানা, আন্তঃসিটিকর্পোরেশন, আন্তঃজেলা ও আন্তঃবিভাগ বদলি করা যাবে। তবে ওই সময়সীমার মধ্যে একই উপজেলা/থানায় পদ শূন্য হলে বদলি করা হওয়া যাবে। বদলির পর ৩ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত পুনরায় বদলি করা যাবে না।

মন্ত্রণালয় কর্মকর্তারা জানান, গত বছর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে ঢাকার সিটি কর্পোরেশন এলাকায় শিক্ষক বদলি কার্যক্রম স্থগিত থাকলেও নতুন বদলি নীতিমালায় সেটি বাতিল করা হয়েছে।

আরও পড়ুন>>> বিখ্যাত মনীষীদের ১০০ বাণী