বৃহস্পতিবার, ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং। ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। দুপুর ১:৫৪








প্রচ্ছদ » আইন ও আদালত

এক ঘটনায় এত মামলায় বিস্ময় হাইকোর্টের

বাংলাদেশ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের একজন উপদেষ্টা ছিলেন ব্যারিষ্টার মইনুল। কিন্তু সম্প্রতি একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে একটি টকশোতে তিনি সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে কটূক্তি করেন। আর সেখান থেকেই ঘটে বিপত্তি।মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে করা মানহানির মামলায় জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। জামিন না পেয়ে কারাগারে আছেন তিনি।

ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে এক ঘটনায় এত মামলায় বিস্ময় প্রকাশ করে হাইকোর্ট বলেছেন ক্ষুব্ধ ব্যক্তিবাদে অন্য কেউ এত মামলা কেন করে। সেই সাথে ব্যারিস্টার মইনুলকে জরুরী ভাবে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে আগামী রোববারের মধ্যে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছে হাইকোর্ট।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

রংপুর কারা কর্তৃপক্ষ ও রংপুর মেডিকেল কর্তৃপক্ষকে এই নির্দেশ বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে। এই সঙ্গে এই সময়ে রংপুর থেকে অন্য কোন জেলায় স্থানান্তরের সময় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন কে যথাযথ নিরাপত্তা দিতে সরকারকে নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার সকালে পৃথক দুই আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো: ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আগামী রোববার এই রিট আবেদন দুটির পরবর্তী শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।আদালতে ব্যারিস্টার মইনুলের পক্ষে পক্ষে করেন অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল কাজী জিনাত হক।

উল্লেখ্য, গত ১৬ অক্টোবর রাতে একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের টক শোতে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে উদ্দেশ্য করে ‘চরিত্রহীন’ বলে মন্তব্য করেন। পরে এ ঘটনায় কুড়িগ্রাম ও রংপুরের আদালতে মইনুলের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করা হয়। এর মধ্যে রংপুরের মামলায় তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

সূত্রঃ পূর্বপশ্চিম

আরও পড়ুন>>> বিখ্যাত মনীষীদের ১০০ বাণী