বুধবার, ১৬ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং। ৩রা মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। দুপুর ১:৩৬








প্রচ্ছদ » এক্সক্লুসিভ

গাজীপুরের সেই যুবককে চাকরি দিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সারাদেশে প্রতিনিয়নত অবাক ঘটনা ঘটে তবে  কিছু কিছু অবাক ঘটনা মন ছুয়ে যায় সবার । এমনি এমনি একটি ঘটনা ঘটেছে  সম্প্রতি যা সবার মন কেড়ে নিয়েছে । পোস্টা‌রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছ‌বি‌তে লে‌গে থাকা রং টিস্যু দি‌য়ে মু‌ছার ভি‌ডিও প্রচা‌রের পর আলোচনায় আসে এক যুবক। অব‌শে‌ষে প্রধানমন্ত্রীর স‌ঙ্গে সাক্ষা‌তেরও সু‌যোগ হ‌য়ে‌ছে তার। তার নাম রাজু আহমেদ। সম্প্রতি এই ভিডিওটি ভাইরাল হয়।

জানা যায়, গতমাসে আয়কর মেলা উপলক্ষ্যে গাজীপুরে বঙ্গতাজ অডিটোরিয়ামের সামনে শেখ হাসিনার ছবিতে ইচ্ছাকৃত লাগানো রঙ সে টিস্যু দিয়ে পরিস্কার করছিল। বিষয়টি দেখতে পেয়ে সন্দেহবশ গাজীপুর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মেহেদী সরকার ভিডিও করে রাজুকে জিজ্ঞাসাবাদ করে। কিন্তু রাজু জানায় সে টিস্যু দিয়ে নেত্রীর বিকৃত ছবি পরিস্কার করছিল। এতে মেহেদী বিব্রত হয়; নিজের ভুল বুঝতে পারে। পরে সে ফেসবুকে ভিডিওটি আপলোড করে। ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিও। পরে ভিডিওটি সাজানো কি না তা তদন্ত শুরু হয়। তখন বেরিয়ে আসে চরম বাস্তবতায় আর ভালোবাসার এক গল্পের ইতিহাস।

গত ১৪ ডিসেম্বর গণভবনে ইশতেহার কমিটির বৈঠক শেষে দীপক কুমার বনিক প্রধানমন্ত্রীকে ভিডিটিও দেখান। প্রধানমন্ত্রী দেখে অবাক হন এবং রাজুর সাথে দেখা করার ইচ্ছা ব্যক্ত করেন। পরে রাজুর সাথে যোগাযোগ করে তাকে ঢাকায় আসতে বলেন আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া।

সোমবার (১৭ ডিসেম্বর) রাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে সাক্ষাতের সুযোগ পান রাজু আহমেদ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেদিনের ঘটনা শুনে বিস্মিত হন। তার পরিবারের খোঁজ-খবর নেন। এরপর রাজুকে ফারমার্স ব্যাংকে চাকরির ব্যবস্থা করে দেন।

রাজুর বাবা পেশায় একজন চা বিক্রেতা। মানুষের সহযোগিতায় সে লেখাপড়া করে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় জিপিএ-৫ পায়। এরপর উত্তরায় বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় আইইউবিএটিতে ভর্তি হয়। রাজুর পরিবারের কথা শুনে বিশ্ববিদ্যালয়টি বিনা বেতনে পড়ার সুযোগ দেয়। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে সে চাকরি খুঁজতে থাকে। কিন্তু চাকরি আর হয় না।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে  সাক্ষাতের পর আপ্লুত রাজু। তিনি মমতাময়ী প্রধানমন্ত্রীর ভালোবাসায় বিস্মিত। এ সময়  জানান, এদেশের তরুণদের মনের কথা বুঝতে পেরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাকরিতে কোটার যৌক্তিক সংস্কার করেছেন। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি তরুণ প্রজন্মের কাছে বাংলাদেশের পক্ষে নৌকায় ভোট চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ।

 

 

শেখ হাসিনা ও একজন বেকার শিক্ষিত যুবকচাকরীর জন্য দ্বারে দ্বারে ঘোরা যার প্রতিদিনের রুটিক মাফিক কাজ।এমনই চলার পথে ঐ যুবকের চোখে পরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পোস্টারে ছবিতে কোন এক দূর্বৃত্তরা রং দিয়ে ছবিটিকে ব্যঙ্গ করেছেন।বেকার যুবক চাকুরী না পেয়ে তিক্ত না হয়ে পরম ভালো বাসায় নিজের জন্য গচ্ছিত রাখা টিস্যু দিয়ে স্বযত্নে ছবিটি পরিস্কার করেছেন।পেয়েছেন তৃপ্তিও…….এরই নাম ভালোবাসা……প্রধানমন্ত্রী নিকট আবেদন,"এমন শেখ হাসিনা প্রেমী যুবকের যোগ্যতানুসারে তাকে যে কোন একটা চাকুরী দেওয়ার বিনীত আবেদন।"

Posted by Nazneen Chowdhury on Thursday, December 13, 2018

 

আরও পড়ুন... গুণীজনের ১০০ বাণী , যা আপনার জীবনকে বদলে দিতে পারে