রবিবার, ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ইং। ৮ই আশ্বিন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। রাত ৪:৩৯










প্রচ্ছদ » অর্থ ও বাণিজ্য

বাপ্পা-তানিয়ার দাম্পত্য জীবনে অসুখের হাওয়া!

বাংলাদেশের জনপ্রিয় কন্ঠ শিল্পী বাপ্পা মজুমদার ।বছর খনিক ধরে সাংসারিক জীবন নিয়ে সবসময় সামলোচনয় থানছেন এ শিল্পী। অভিনেত্রী চাঁদনীকে ডিবোর্স দিয়ে দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন অারেক টেলিভিশন অভিনেত্রী তানিয়া।

এখনও বছর পেরোয়নি বাপ্পা মজুমদার-তানিয়া হোসাইনের দাম্পত্য জীবনের। অথচ গানের পাড়ায় ফিসফিসানি চলছে- হালে এই তারকা দম্পতির বোঝাপড়ার জল দিন দিন ঘোলাটে হয়ে যাচ্ছে। বাপ্পা নাকি ঘরের মধ্যেই তার স্টুডিওতে পড়ে থাকছেন গভীর রাত পর্যন্ত। এ নিয়ে তানিয়া কোন অভিযোগ না করে নিজের মতোই খাচ্ছেন ঘুমুচ্ছেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

যদিও পারিবারিক আর সামজিক অনুষ্ঠানে এ দম্পতিতে হাস্যোজ্জ্বল দেখা গেলেও মনের আসল অবস্থাকে চেপে যাচ্ছেন তারা। অবশ্য চেপে যাওয়ার বিষয়টি বাপ্পা মজুমদারের কাছে নতুন কিছু নয়। তিনি চাঁদনীর সঙ্গে প্রেম বিয়ে অনেকদিন সরাসরি অস্বীকার করেছিলেন। বিয়ের পর মুখ খুলেছেন।

তানিয়া হোসেনের সঙ্গে বাপ্পার সম্পর্ক নিয়ে প্রশ্ন করলে বিয়ের আগে বাপ্পা মজুমদার সরাসরি বলেছিলেন, তাকে আমি ভালোভাবে চিনিও না। দেখেছি হয়ত। সুতরাং প্রেম বিয়ের প্রশ্নই ওঠে না। এমন মন্তব্যের ছয় মাস পার হতে না হতেই বাপ্পার বাহুলগ্ন হয়েছেন তানিয়া। দাম্পত্য জীবনের খিটিরমিটিরের বিষয়টিও ভালোভাবেই চেপে যাবেন গায়ক এটাই স্বাভাবিক।

এদিকে বাপ্পা মজুমদারের সাবেক স্ত্রী চাঁদনীর ঘনিষ্টজনদের কাছ থেকে কানকথায় জানা গেছে, মাঝে মাঝে মাঝ রাতে বাপ্পা নাকি স্টুডিওতে বসে চাঁদনীকে ফোন দেন। কুশলাদি জিজ্ঞেস করেন, আলাপ করেন গান নিয়ে। নতুন কোনো গান বাঁধলে সেটাও শোনান। মাঝে মাঝে নিশ্চুপ থাকেন ফোনে। চাঁদনী হ্যালো হ্যালো বললেও কোন উত্তর পাওয়া যায় না!

এদিকে, ঈদের সময় বাপ্পা মজুমদার কানাডা ছিলেন। এক সপ্তাহের কথা বলে কানাডা গেলেও থেকেছেন অনেকদিন। এ নিয়ে তানিয়া হোসাইনও নাকি মন খারাপ করেছেন। সংসারে কম বেশি ঝামেলা লেগেই থাকছে। মিডিয়ায় হালে যেভাবে ভাঙ্গনের মিছিল চলছে, তা আর দীর্ঘ যাতে না হয় এটাই সবার কামনা।তারা যেন সংসার জীবনে মিল তাল ভাবে থাকতে পারেন এটাই সবার কাম্য।

উল্লেখ্য ,অভিনেত্রী চাঁদনীর সাথে প্রেম করে বিয়ে করেছিলেন বাপ্পা পরে ডিবোর্স দেন বাপ্পা চাঁদনীকে।