বুধবার, ১৬ই জানুয়ারি, ২০১৯ ইং। ৩রা মাঘ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। দুপুর ১:৫৩








প্রচ্ছদ » বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

প্রতিদিন ‘গোসল’ না করা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো!

প্রতিদিন গোসল দেহকে পরিষ্কার রাখতে সাহায্য করে। শীতকাল মানেই গোসলের ভয়। আমরা জানি গোসল করা না হলে শরীরে বিভিন্ন জটিল সমস্যা হয়। শরীরে দুর্গন্ধ, ত্বকের বিভিন্ন সমস্যাও হয়। এ ছাড়া শরীরকে শিথিল ও সতেজ রাখতেও গোসলের ভূমিকা অনন্য।

এদিকে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বস্টন ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক মনে করছেন, নিয়মিত গোসল না করা স্বাস্থ্যের জন্য ভালো।

মার্কিন গবেষকদের মতে, প্রতিদিন গোসল করলে ত্বকের বেশ ক্ষতি হতে পারে। মূলত শরীরের ময়লা, ঘাম ধুয়ে ফেলার জন্যই আমরা গোসল করে থাকি। তবে বিশেষজ্ঞদের দাবি, শরীরের ময়লা, ঘাম ধোয়ার সঙ্গে গোসলের কোনো সম্পর্ক নেই।

একাধিক মার্কিন চর্মরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে, প্রতিদিন গোসল করাটা অনেকটাই সামাজিক রীতি বা অভ্যাস। এ বিষয়ে তাদের যুক্তি হলো, শরীরের নিজস্ব ক্রিয়াই ত্বককে ময়লা হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। তবে গোসল একেবারে বন্ধ করার পক্ষেও কোনো যুক্তি দেননি তারা।

বস্টন ইউনিভার্সিটির গবেষকদের মতে, শরীরে এমন কিছু ভালো ব্যাকটেরিয়া জন্মায় যা টক্সিনের হাত থেকে ত্বককে রক্ষা করে। প্রতিদিন গোসলের ফলে ভালো ব্যাকটেরিয়াগুলো শরীর থেকে ধুয়ে বেরিয়ে যায়। আর তাতে শরীরেরই ক্ষতি হয়।

এ ছাড়া নিয়মিত গোসলের ফলে নখের খুব ক্ষতি হয়। মার্কিন গবেষকদের মতে, গোসলের সময় নখ অতিরিক্ত জল শোষণ করে ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে পড়ে।

আমাদের মাঝে অনেকে আছেন যারা প্রতিদিন গোসল করাটাকে একেবারে অলঙ্ঘনীয় নিয়ম বলে ধরে নেন। অনেকে আবার একেবারে বাধ্য না হলো অমুখো হন না। কিন্তু বিজ্ঞান কি বলে? আসলেই কি প্রতিদিন গোসল করাটা জরুরী?

আরও পড়ুন... গুণীজনের ১০০ বাণী , যা আপনার জীবনকে বদলে দিতে পারে