বুধবার, ২৭শে মার্চ, ২০১৯ ইং। ১৩ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। রাত ২:০৮








প্রচ্ছদ » খেলাধুলা

আর তিন চার মিনিট আগে আসলে আমরা মসজিদেই থাকতাম

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে তামিম ইকবাল ও মুশফিকুর রহিমসহ বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা জুমার নামাজ আদায় করতে গিয়েছিলেন সেখানে বন্দুকধারীর হামলায় অন্তত ৪০ জন নিহত হয়েছেন। ওই মসজিদে অন্তত ৩০০ মুসল্লি ছিলেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।

পাইলট বলেন, কোন দেশেই চাই না এমন এক্সিডেন্ট হোক। আমরা অনেক লাকি। আমরা বাসে বেশ অনেকজন (১৭ জন) ছিলাম। দুজন প্লেয়ার মাত্র হোটেলে ছিলো। বাদবাকি সবাই বাসে ছিলো। আমরা খুবই কাছে ছিলাম। মসজিদটা আমরা দেখতে পাচ্ছিলাম। খুব বেশি হলে আমরা ৫০ গজ দূরে ছিলাম। আমি বলব আমরা খুব লাকি।

তিন চার মিনিট আগে যদি আমরা চলে আসতাম তাহলে আমরা মসজিদের ভেতরেই হয়ত থাকতাম। তবে আমরা বাইরে থেকে দেখেছি, এরপর আমরা ভিডিওতে দেখেছি, মুভিতে যেমন হয়। দেখেছি মানুষজন রক্তাক্ত অবস্থায় বেরিয়ে আসছে। প্রায় আট দশ মিনিট আমরা বাসের মধ্যেই ছিলাম। আমরা সবাই মাথা নিচু করেছিলাম এসময়।

প্লেয়ারদের কী অবস্থা সে বিষয়ে জানতে চাইলে পাইলট বলেন, এটা খুবই স্বাভাবিক আপনার সামনে এমন টেরর অ্যাটাক লাইভলি দেখেছেন। নিজের গায়ের ওপর যে আসবে না সে বিষয়ে কেউই নিশ্চিত না। আমি প্লেয়ারদেরকে দেখেছি, বাসের মধ্যে কান্নাকাটি করতে, কী করা যায় তারা ভেবেছে। এটা আসলেই খুব কঠিন। এরপরে আমরা তাদের হোটেলে নিয়ে এসেছি। এই মুহূর্তে আমি ম্যানেজার হিসেবে সবাইকে হোটেলে একত্রিত করেছি।

আরও পড়ুন... বিখ্যাত প্রেমের কবিতা

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...