মঙ্গলবার, ১৭ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং। ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ। দুপুর ২:৫৮








প্রচ্ছদ » ক্রাইম ওয়ার্ল্ড

প্রেমিকাকে দৌলতদিয়ায় বিক্রির সময় হাতেনাতে ধরা প্রেমিক!

প্রতিনিয়ত নিত্য নতুন একের পর এক অপরাধ ঘটেই চলেছে আমাদের চারিপাশে। তার সব আমরা জানতে না পারলেও কিছু কিছু ঘটনা আমাদের খুবই অবাক করে দেয়। তেমনি আরেকটি ঘটনা এটি।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ১৫ বছর বয়সী এক কিশোরীকে দৌলতদিয়া পতিতালয়ে বিক্রির সময় হাতেনাতে ধরা পড়লেন মিজানুর রহমান ওরফে জিয়ারুল ইসলাম (৩৬) নামে এক প্রতারক প্রেমিক। গোপন সংবাদের ভিক্তিতে বুধবার রাতে দৌলতদিয়ার যৌনপল্লী এলাকার ১নং গেটের পাশে কুষ্টিয়া-চুয়াডাঙ্গা বোর্ডিংয়ের সামনে এই লম্পটকে আটক করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে গোয়ালন্দ ঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. এজাজ শফী বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পতিতালয়ে বিক্রির চেষ্টাকালে কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় মিজানুর রহমানকে হাতে-নাতে আটক করা হয়েছে।

আটক জিয়ারুল ইসলাম রাজশাহী জেলার বাঘা উপজেলার লক্ষীনগর গ্রামের তফিল উদ্দিন গারোয়ানের ছেলে। তাকে রাজবাড়ী আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

প্রতারণার শিকার ওই কিশোরী জানায়, মিজানুর রহমানের সাথে এক মাস আগে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সে আমাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে বুধবার দুপুরে আশুলিয়া থেকে প্রথমে বাসে এবং পরবর্তীতে ফেরি পার করে এখানে নিয়ে আসে।

সে আমার সাথে প্রেমের নামে প্রতারণা করেছে। আমি গোয়ালন্দ থানা পুলিশের কাছে চিরকৃতজ্ঞ। তারা সময়মতো উপস্থিত না হলে হয়তো আমাকে চিরদিনের জন্য অন্ধকার জগতে পড়ে থাকত হতো।

আরও পড়ুন... বিখ্যাত প্রেমের কবিতা

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...