শনিবার, ১৯শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং। ৭ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ। রাত ১:০১








প্রচ্ছদ » আইন ও আদালত

ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় বহালও থাকতে পারে রিভিউতে

ষোড়শ সংশোধনী বাতিল রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ শুনানীর পর যদি আপীল বিভাগ মনে করেন, রায়ে রিভিউ করার মত কোনো অংশ আছে, তবে আপীল বিভাগ তাদের রায় রিভিউ করতে পারে। আপীল বিভাগ তার রায় রিভিউ করে হয় তাদের পূর্বের রায় বহাল রাখতে পারে অথবা তাদের রায়কে আরো ভালোভাবে বিশ্লেষন করে রায়ে কিছু পরিবর্তন আনতে পারে। টিভিএনএ’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন সাবেক এ্যাটর্নি জেনারেল এ এফ হাসান আরিফ।

তিনি বলেন, রিভিউ পিটিশন দাখিল করার অধিকার যে কোনো নাগরিকেরই আছে, যদি তিনি আপীল বিভাগের কোনো রায়ে সংক্ষুব্ধ হন অথবা রায়ের মধ্যে যদি রিভিউ করার মত কিছু থাকে। রিভিউ করার জন্য অবশ্য বিচার বিভাগীয় নীতি প্রচলিত রয়েছে। আপীল বিভাগের যে নিয়ম রয়েছে, তাতেই রিভিউ পিটিশনের গাইডলাইন রয়েছে। সে নীতিমালা অনুসরন করেই যদি রিভিউ পিটিশন দাখিল করা হয়, তবে আপীল বিভাগের নিজস্ব ক্ষমতাবলেই তাদের রায়কে তারা রিভিউ করতে পারেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

হাসান আরিফ বলেন, প্রধান বিচারপতি পদ পূরণ করে না করে রিভিউ শুনানীর ব্যাপারে দ্বিমত রয়েছে। এখানে কিছু প্রশ্ন আসতে পারে। প্রথমত, মূল রায়টি দিয়েছিলেন সাতজন বিচারক, এখন বিচারক আছেন পাঁচজন। এখন সাতজন বিচারকের রায় পাঁচজন বিচারক রিভিউ করতে পারবেন কিনা এটি একটি প্রশ্ন। কেননা, একটি জুরির রায় যদি রিভিউ করতে হয়, তবে রিভিউ করার জন্য যে বেঞ্চ গঠিত হবে, তাতে হয় সমসংখ্যক বিচারক থাকতে হবে অথবা তার থেকে অধিক বিচারকের বেঞ্চে রায়টি রিভিউ করতে হবে।

যদিও এরূপ কোনো আইন লিখিত নেই, তবে এটি একটি প্রচলিত রীতি। দ্বিতীয় প্রশ্নটি হল, প্রধান বিচারপতিও সেই রায় প্রদানকারী বিচারকদের মধ্যে একজন ছিলেন। এখন প্রধান বিচারপতির পদ শূণ্য অবস্থায় এই রায়টির রিভিউ কতটুকু যৌক্তিক হবে, তাও একটি প্রশ্ন। সংবিধানের মধ্যে স্বীকৃত কিছু রীতিনীতি রয়েছে। এই রীতিনীতি গুলো পরবর্তীতে স্বীকৃতি পায়, সংবিধানের অংশে পরিণত হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের যে সংবিধান রয়েছে, তা ২৫০ বছরের পুরাতন। তার ভাষার মধ্যেও অনেক পরিবর্তন ঘটে গেছে। তার পরেও সেটি চলছে কেননা, ধীরেধীরে যে রীতিনীতির স্বীকৃতি এসেছে, তাই সংবিধানের অংশে পরিণত হয়েছে।

নিম্ন আদালতের বিচারকদের চাকরির শৃঙ্খলা-সংক্রান্ত বিধিমালার প্রকাশিত গেজেট মাজদার হোসেন মামলার রায়ের সাথে এটি সামঞ্জস্যপূর্ণ নয়। সিনিয়র আইনজীবীদের এ বিষয়টি পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখা প্রয়োজন রয়েছে বলেন মনে করেন সাবেক এ্যাটর্নি জেনারেলে এ এফ হাসান আরিফ। – আমাদের সময়

আলোচিত মাসদার হোসেন মামলা থেকে ড. কামাল ও আমীরকে প্রত্যাহার!
আমরা মৃত ব্যক্তির জন্য অনেক সময় কোরআন খতম করাই। এতে কি মৃত ব্যক্তি সওয়াব পান নাকি যিনি কোরআন পড়লেন!
আদালতে পল্টনের মতো বক্তব্য দিলে হবে না: প্রধান বিচারপতি


সর্বশেষ সংবাদ

জেনে নিন কারা থাকছেন তৃতীয়-চতুর্থ ওয়ানডেতে

১৫ দিনের মধ্যে খালেদাকে কারাগারে যেতে হবে

নাফিসের রেকর্ড স্পর্শ করলেন বিজয়

দীপিকাকে এবার জীবন্ত কবর দেওয়ার হুমকি! কাটছে না আতঙ্ক

পুরো ৩০ দিনে মাত্র ৬ মিনিটের জন্য দেখা দিল সূর্য

যেভাবে ৬০০০ সাল থেকে ২০১৮-তে এসে পৌঁছেছেন এই ব্যক্তি!

নারী যাত্রীদের জন্য রাস্তায় নামলো গোলাপি অটো

এবার আরেকজন বিগ হিটার খুঁজছেন মাশরাফি

এখানে মাস্তানি করতে আসবেন না, আমার থেকে বড় মস্তান কেউ নেই’

কেন মেনস্ট্রুয়াল কাপ বেছে নিচ্ছেন ভারতের মেয়েরা?

আওয়ামী লীগে যোগ দিয়ে যে পদ পেলেন এস ডি রুবেল

ঘণ্টায় ৭০ মাইল বেগে ঝড়ে অবতরণ বিমানের, ভিডিও দেখলে বুকটা কেঁপে উঠবে

পুরোনো কথা মনে করতে পারছেন না আইভী 

প্রিয়জনদের হারালেন সালমান খান , কাঁদলেন সংবাদমাধ্যমের সামনেই

গুগল এবং ফেসবুক মানব সভ্যতার জন্য বিরাট হুমকি স্বরূপ!

জয়ের পর লাইভে এসে যা বললেন মুশফিক

অবশেষে মা হচ্ছেন প্রীতি জিনতা

বাসর রাতে স্বামীর বর্বর যৌন নির্যাতনে স্ত্রীর মৃত্যু, বিয়ে বাড়িতে শোকের ছায়া

ঘাড়, ঠোঁট ও চোখের নিচের কালো দাগ উঠাতে করণীয় জেনে নিন

বাংলাদেশের অরিন রঞ্জিত মল্লিকের পুত্রবধূ





error: Content is protected !!
Copy to clipboard