শনিবার, ২০শে জানুয়ারি, ২০১৮ ইং। ৭ই মাঘ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ। সকাল ১১:১৫








প্রচ্ছদ » সারাদেশ

সিজারিয়ান রোগীর পেটে গজ,ব্যান্ডেজ ও কাচি রেখে সেলাই

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল জেলা প্রতিনিধি■-(১২ জানুয়ারি ২০১৭-২৭৪): নড়াইলে পেটে গজ, ব্যান্ডেজ রেখে সেলাই: দুই চিকিৎসকের নামে মামলা সিজারিয়ান রোগীর পেট থেকে গজ, ব্যান্ডেজ ও ছোট কাইচি রেখে সেলাইয়ের অভিযোগে নড়াইলে দুই চিকিৎসকের নামে থানায় মামলা হয়েছে। ভুক্তভোগী শারমিন আক্তারের পিতা মো. মনি মোল্যা বাদী হয়ে সদর থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।

 

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়ের রিপোর্টে, গতকাল অভিযুক্তরা হলেন-সদর হাসপাতালের জুনিয়র সার্জারি বিশেষজ্ঞ ডা. নুরুজ্জামান ও বেসরকারি ফ্যামিলি কেয়ার হাসপাতালের (ক্লিনিক) পরিচালক ডাক্তার মুকুল হোসেন।মামলার বিবরণে জানা গেছে, নড়াইল সদর উপজেলার শাহাবদ ইউনিয়নের ধোন্দা গ্রামের মো. মনি মোল্যার কন্যা মাগুরা জেলার শালিখা উপজেলার খাটোর গ্রামের মাসুদ মিয়ার স্ত্রী ২০১৭ সালের ২৯ জুলাই নড়াইল শহরের ফ্যামিলি কেয়ার ক্লিনিকে ৮ হাজার  টাকার চুক্তিতে সিজারিয়ান অপারেশন করে এক পুত্র সন্তান ভূমিষ্ঠ হয়। ক্লিনিক পরিচালক ডাক্তার মুকুল হোসেন এবং ডাক্তার নুরুজ্জামান এ অপারেশন সম্পন্ন করেন। অপারেশনের দশ দিন যেতে না যেতেই অস্ত্রোপচারের জায়গায় ইনফেকশন হয় এবং ফুলতে শুরু করে। পরে ফ্যামিলি কেয়ারে বেশ কয়েকবার গিয়ে কোনো উপকার হয়নি বরং অবনতি হতে থাকে। এক
পর্যায়ে চলতি বছরের ২ জানুয়ারি যশোরের কুইন্স হাসপাতালে ভর্তি হলে সেখানে কর্তব্যরত গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তার রীনা বোসের পরামর্শ অনুযায়ী আলট্রাসনোগ্রাম করেন। এ সময় ডা. হামিদা আক্তার রিপোর্টে উল্লেখ করেন যে, পেটের মধ্যে ফরেনবডি পরিলক্ষিত হচ্ছে। পরে যশোর সদর হাসপাতালের গাইনী বিশেষজ্ঞ ডা. রীনা বোসসহ তিনজন চিকিৎসক ৩ দফা অপারেশন করে পেট থেকে গজ, ব্যান্ডেজ ও ছোট কাইচি বের করে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছে। মামলার বাদী আরও জানান, চিকিৎসকদের অবহেলা এবং ভুলের কারণে তার মেয়ের জীবন সংকটাপন্ন। এছাড়া এ পর্যন্ত মেয়ের চিকিৎসা করাতে ২ লাখ টাকার

 

উপরে খরচ হয়েছে। শারমিন আক্তার এখনও যশোর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ফ্যামিলি কেয়ার হাসপাতালের পরিচালক ডাক্তার মুকুল হোসেনের মোবাইল নাম্বারে ফোন করলে রিসিভ করে জানানো হয় যে,‘‘এটা
ডাক্তারের নম্বর নয়। আপনি তার সাথে সরাসরি কথা বলেন’’। এই কথা বলে ফোন কেটে দেয়। নড়াইল সদর হাসপাতালের জুনিয়র গাইনী বিশেষজ্ঞ ডাক্তার নুরুজ্জামান বলেন, ‘এ বিষয়ে আমিও ভালো জানি না। ভালো করে জেনে তারপর জানাবো। এ
ব্যাপারে নড়াইল সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন মামলার কথা স্বীকার করে আমাদের নড়াইল জেলা প্রতিনিধি উজ্জ্বল রায়কে জানান, বিষয়টির তদন্ত শুরু হয়েছে। এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এসআইসহ চার পুলিশ ক্লোজ
৭০ বছরে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, ৭ দিনে ২৯ জনের মৃত্যু
প্রেমিকার বিয়ে হওয়ায় স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করল যুবক


সর্বশেষ সংবাদ

অমিতাভ ও মাধুরীদের সারিতে সানি লিওন

এখন আমরা স্বাধীন, সিদ্ধান্তও নিতে পারি: সাকিব

ঢাবি সিনেটে রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচন চলছে

হামলা চালাতে রাশিয়ার অনুমতি চেয়েছে তুরস্ক : আমেরিকার হুঁশিয়ারি

ইংলিশ চ্যানেলে তৈরী হবে ব্রিজ!

‘১৫ দিনের মধ্যে খালেদাকে কারাগারে যেতে হবে’-মশিউর রহমান রাঙ্গা

ভোররাতে যশোরে ‘গোলাগুলিতে’ নিহত ৪

এক ওভারে ৩৭ রান!

দেশের বাইরে গেলে যে ১১ টি বস্তু অবশ্যই থাকে রাণী এলিজাবেথের সাথে!

কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ভারত

কওমি ও আলিয়া মাদ্রাসায় আসলে কী শিখছে শিক্ষার্থীরা জেনে নিন

এক নজরে দেখেনিন বাংলাদেশের ক্রিকেট ইতিহাসের সর্বোচ্চ স্কোরগুলো

আজ ২০/০১/২০১৮ তারিখ দেখে নিন আজকের টাকার রেট!

এবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা নীতিতে পরিবর্তন

অাইভীর শরীরের কন্ডিশন কী জানা যাবে অাজ

নারী ধূমপায়ীদের তালিকায় বিশ্বে প্রথম হলো বাংলাদেশ!

তৈমুরের কাছে মেয়েকে রাখতে ভয় পান সোহা আলি খান!

দিনে করেন শিক্ষকতা, রাতে গাড়ি জ্বালিয়ে দেন যে অধ্যাপক! জানুন বিস্তারিত….

প্রতি ঘণ্টায় মাদকের ১১টি করে মামলা হয় !

বাদ পড়ছেন বিতর্কিত শতাধিক এমপি জেনে নিন তারা কে কে





error: Content is protected !!
Copy to clipboard