বৃহস্পতিবার, ১৯শে জুলাই, ২০১৮ ইং। ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। দুপুর ২:০৪








প্রচ্ছদ » এটা কোন ক্যাটাগরি না (Super 6)

রাজধানী ঢাকার রাস্তাকে পরিস্কার করবে ‘রোড সুইপার’

বাংলাদেশের সবচেয়ে ঘন বসতিপূর্ণ নগরী হলো রাজধানী ঢাকা।এই বিপুল মানুষের চাপে রাজধানী ঢাকা যেন বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়ছে।  ঘণবসতিপূর্ণ রাজধানী যেন ধুলোবালির শহর। প্রতিনিয়ত রাস্তায় খোঁড়াখুঁড়ি আর বড় বড় নির্মাণের ফলে রাস্তাঘাট ধুলোয় ভরে যায়। সারাদিনের ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার করতে হিমশিম খেতে হয় সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা। তবে এরপরও ধুলো আর আর্বজনায় ভরপুর থাকে রাস্তাঘাট।

এই সমস্যা সমাধান করতে ও দ্রুত পরিষ্কার করার জন্য ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)নামানো অত্যাধুনিক ‘রোড সুইপার’ বেশ কাজে দিচ্ছে। ভারী এই যন্ত্রের মাধ্যমে সহজেই অল্প সময়ে ঝকঝকে করছে রাস্তা।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...

গত ৫ মার্চ পরীক্ষামূলকভাবে রাজধানীর দু’টি রুটে রোড সুইপারটি নামানো হয়। এরপর থেকে প্রতিদিন রোড সুইপারটি দু’টি রুটে প্রতিদিন রাত ১২টা থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত রোড সুইপ করছে। যাতে দিনে গড়ে রাস্তা পরিষ্কার হচ্ছে ১৮ কিলোমিটার।

এটি ঘণ্টায় ঘণ্টায় ৮ কিলোমিটার রাস্তা পরিষ্কার করতে সক্ষম। তবে ধুলোর পরিমাণ বেশি-কম হলে এটির গতিও বেশি কম হয়।বর্তমানে এটি দিয়ে ৩ থেকে ৪ কিলোমিটার রাস্তা পরিষ্কার করা যাচ্ছে।যন্ত্রটি প্রতিদিন গড়ে ৩ হাজার ৮৬৩ কিলোগ্রাম বর্জ্য অপসারণ করছে।

জানা গেছে, এটি চালু হওয়ার পর থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত ৮৩ দিনে ৩৯৩ ঘণ্টা রাস্তা সুইপ করে এক হাজার ২৭৯ কিলোমিটার রাস্তা পরিষ্কার করেছে যন্ত্রটি। যা দিয়ে দুটি রুটের ৩ লাখ ২১ হাজার কিলোগ্রাম বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে।এ বিষয়ের সাথে সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এই রোড সুইপার দিয়ে ৮৬ জন পরিচ্ছন্নকর্মীর সমান কাজ করতে সক্ষম। এটি দিয়ে একদিকে যেমন অল্প সময়ে অধিক কাজ করা সম্ভব। অন্যদিকে অর্থ সাশ্রয় হচ্ছে।

বর্তমানে মানিক মিয়া এভিনিউ, খেজুরবাগান, ক্রিসেন্ট লেক, বিজয় সরণি, ইন্দিরা রোড, গণভবন, সংসদ ভবনের আশপাশে পরিচ্ছন্নতার কাজে এটি ব্যবহৃত হচ্ছে।

রোড সুইপারটি দেখতে অনেকটা কাভার্ডভ্যানের মতো। এর ইঞ্জিন দুই ভাগে বিভক্ত। একটির কাজ পথ মাড়ানো। অন্যটির কাজ রাস্তা ঝাড়ূ দেওয়া। সুইপার যন্ত্রটির সামনের দিকে রয়েছে দুটি সাকশন (শোষণ) পাইপ। প্রতিটি পাইপ একসঙ্গে দেড় ফুট ব্যাসের জায়গার ময়লা-আবর্জনা শুষে নিতে পারে। যন্ত্রটি চালু হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে রাস্তার ময়লা সাকশন পাইপের মাধ্যমে ওপরে অবস্থিত গার্বেজ ট্যাঙ্কারে জমা হয়।

আরেকটি ইঞ্জিনের মধ্যমে গাড়িটি ধীরে ধীরে চলার সঙ্গে সঙ্গে রাস্তার সব ময়লা-আবর্জনা শুষে ট্যাঙ্কে নিয়ে যাবে। ট্যাঙ্কে ছয় টন বর্জ্য ধারণ করতে পারে। এছাড়া একটি পৃথক পানির ট্যাঙ্কও রয়েছে। প্রয়োজনে ট্যাঙ্ক থেকে পৃথক পাইপের মাধ্যমে রাস্তায় পানি ছিটিয়েও রাস্তা পরিস্কার করা যাবে। প্রতিদিন চার থেকে পাঁচ ঘণ্টা বর্তমানে যন্ত্রটি চালানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে ডিএনসিসির বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী আবুল হাসনাত আশরাফুল ইসলাম বলেন, ২০১২ সাল থেকে ২০১৮ পর্যন্ত সময়ে ডিএনসিসির ৭ জন পরিচ্ছন্নতা কর্মী মারা গেছেন। ৮ জন কর্মক্ষমতা হারিয়েছেন। মান্ধাতা আমলের পদ্ধতিতে রাস্তা ঝাড়ূ দিতে গিয়ে ১১ জন আহত হয়েছেন। এক কথায় পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের মাধ্যমে যেভাবে রাস্তা পরিষ্কার করা হয়, তা স্বাস্থ্যসম্মত নয়। এ কারণেই এমন উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ডিএনসিসি চেয়েছে স্বাস্থ্যসম্মতভাবে পরিচ্ছন্নতার কাজ করতে।

উন্নতমানের এ রোড সুইপারটির চ্যাসিস জাপানের হিনো কোম্পানির। আর সুইপার মেশিনটি ব্রিটেনের বিখ্যাত জনস্টন কোম্পানির। তারা তিন বছরের গ্যারান্টি দিয়েছেন। তবে ১৩ বছরেও এটার কিছু হবে না। এটির দাম চার কোটি ৯৫ লাখ টাকা।ডিএনসিসির মেয়র আনিসুল হক তার জীবদ্দশায় রোড সুইপার যন্ত্র ব্যবহারের উদ্যোগ নেন। সব প্রক্রিয়া শেষে ফেব্রুয়ারি মাসে রোড সুইপারটি ডিএনসিসির হাতে পৌঁছে।

উল্লেখ্য, পরিবেশ অধিদপ্তরের ক্লাইমেট চেঞ্জ ট্রাস্ট ফান্ড থ্রি ইয়ার নামক একটি প্রকল্পের অধীনে ২০১২ সালে স্বল্প ক্ষমতাসম্পন্ন ছয়টি সুইপার মেশিন আমদানি করা হয়। কিন্তু আমদানির পরই সেগুলো ব্যবহার করতে গিয়ে বিকল হয়ে যায়। সেগুলো আর রাজপথে ব্যবহার করা যায়নি।



সর্বশেষ সংবাদ

বগুড়ায় মুক্তিপণ না পেয়ে প্রথম শ্রেণীর ছাত্রকে হত্যা

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী তরুণীদের দিয়ে দেহ ব্যবসা, অতঃপর!

এরদোগান তুরস্কে দুই বছরের জরুরি অবস্থা তুলে নিল

পূর্ণিমার সাথে বিচ্ছেদের ব্যপারে এবার মুখ খুললেন স্বামী ফাহাদ!

পগবা বিশ্বকাপ জয়ের পদকটা মাকে পরিয়ে দিলেন

ঘরের মেঝেতেই পচল স্ত্রীর লাশ, নির্বাক শুয়ে শুয়ে দেখলেন স্বামী!

মাঝ আকাশেই দুই প্রশিক্ষণ বিমানের সংঘর্ষ, নিহত ৪

পরীক্ষার ফল খারাপ করলে সন্তানকে বকাঝকা করবেন না: শেখ হাসিনা

ভাইয়ের মৃত্যুর বদলা নিতে খাবারে বিষ মেশাল ছাত্রী

যেখানে মজুত রয়েছে হাজার হাজার কোটি টন হীরে!

যে কয়টি কলেজে পাস করেনি একজনও

শাওমির আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করল বাংলাদেশে

সৌদিতে আরও এক বাংলাদেশী হজ যাত্রীর মৃত্যু!

রাজধানী মিরপুরে বাড়ির নিচে গুপ্তধনের সন্ধান !

সমালোচিত সেই আসাদ পংপং ১৪ দিনের রিমান্ডে

এইচএসসির ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন ২০ থেকে ২৬ জুলাই 

‘নারী হয়ে জন্ম নেয়ায় জন্য নিজের প্রতিই নিজের ঘৃণা জন্মাচ্ছিল’

এবার ফ্রান্স কোচ দেশমের পদত্যাগ দাবি!

৬ ঘন্টার ব্যবধানে ২ ভাইয়ের লাশের ভার বইতে হলোঃ পলক

এ বছরও ছেলেদের চেয়ে এগিয়ে মেয়েরা





error: Content is protected !!
Copy to clipboard