বুধবার, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং। ২রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। সকাল ৬:৪০








প্রচ্ছদ » আইন ও আদালত

আদালতের রায়, ‘আগে ১ কোটি টাকা দিন, তারপর ডিভোর্স’!

Loading...

বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার এক বছরখানেক পর থেকেই শ্বশুরবাড়ির থেকে ১ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা নিয়েও বউয়ের উপর অত্যাচার থামেনি অভি্যোগ  স্ত্রীর । এখন স্বামী তাকে  ডিভোর্স দিতে চাচ্ছেন।

এরপর থেকেই টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য লড়াই চালাচ্ছেন স্ত্রী। দুজনে বিভিন্ন আদালতে এই মর্মেই লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। অবশেষে সুপ্রিম কোর্ট তাঁদের মামলার নিষ্পত্তি করল।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...
Loading...

১৬ মাসের মধ্যে স্বামীকে ১ কোটি টাকা স্ত্রীর অ্যাকাউন্টে জমা করে মিউচুয়াল ডিভোর্সের জন্য আবেদন করার নির্দেশ দিল।

২০০০ সালে বিয়ের পর আমেরিকায় পাড়ি দেন দু’জনে। স্বামী আমেরিকাতেই কর্মরত। আর ডাক্তারি পড়া শেষ করে স্ত্রীও আমেরিকাতেই কাজ করছেন।

স্ত্রীর অভিযোগ, বিয়ের কয়েকদিন পর থেকেই তাকে এবং তার পরিবারের উপরে টাকা দেওয়ার জন্য চাপ দিতে থাকেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন। তার বাবার থেকে ১ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা নেন তারা।

তারপরও তার উপর নির্যাতন থামেনি। স্ত্রীর অভিযোগ, জোর করে ডিভোর্স পেপারে সইও করিয়ে নেন স্বামী। এরপর থেকেই টাকা ফেরত পাওয়ার জন্য লড়াই চালাচ্ছেন স্ত্রী।

তবে, প্রথমে ১ কোটি ২৫ লাখ টাকাই ফেরত পেতে মামলা করেছিলেন। কিন্তু এর মধ্যে শ্বশুর মারা যান। তাই আপাতত ১ কোটি টাকা ফেরত চাইছেন তিনি।

স্বামী কখনো বলেছেন সম্পর্কের মেরামত চান। আবার পরক্ষণেই বলছেন, ‘আমাদের মধ্যে এই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখা সম্ভব নয়। অন্যদিকে বিচারপতির কাছে স্ত্রী একটাই দাবি, ‘১ কোটি টাকা আমার চা-ই’।

সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি কুরিয়ান জোসেফনির্দেশ দেন, এই ১৬ মাসে ৪ দফায় ২৫ লক্ষ টাকা করে তাঁকে স্ত্রীকে দিতে হবে।