বুধবার, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং। ২রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। বিকাল ৩:৩৬








প্রচ্ছদ » এটা কোন ক্যাটাগরি না (Super Six)

বাবরের জন্মদিনেই শুনতে হলো মৃত্যুদণ্ডের আদেশ!

Loading...

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট, বাংলাদেশের ইতিহাসে একটি ভয়ালতম দিন ছিল এটি। এই দিনে জন সমাবেশে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটুর জন্য জঙ্গিদের হামলা থেকে প্রানে বাঁচেন। কিন্তু নিহত হয় একাধিক নেতাকর্মীরা।

সেই বহুল আলোচিত ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা ও হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে আজ। রাজধানীর নাজিমুদ্দিন রোডে পুরনো ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের সামনে স্থাপিত ঢাকার ১ নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক শাহেদ নূর উদ্দিন আজ বুধবার এ রায় ঘোষণা করেন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...
Loading...

রায়ে সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, সাবেক উপমন্ত্রী আব্দুস সালাম পিন্টুসহ ১৯ জনের ফাঁসি ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান, বেগম খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, বিএনপি নেতা কাজী শাহ মোয়াজ্জেম হোসেন কায়কোবাদসহ ১৯ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

২০০১ সালে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোট বাংলাদেশে সরকার গঠন করার পর যে কয়েকজন ব্যক্তি প্রবল ক্ষমতাবান হয়ে ওঠেন, তাদের মধ্যে লুৎফুজ্জামান বাবর ছিলেন অন্যতম।

আমিনুর রশিদ এবং মোস্তফা ফিরোজ সম্পাদিত ‘প্রামাণ্য সংসদ’ বইয়ে দেওয়া আছে- আসামি, প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর ১৯৫৮ সালের ১০ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন। আজ সেই ১০ অক্টোবর জন্মদিনে তার মৃত্যুদণ্ডের রায় হলো। এ ছাড়া তার প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা এইচএসসি পর্যন্ত। প্রথমবারের মতো ১৯৯১ সালে নেত্রকোনা থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন বাবর।