বুধবার, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৮ ইং। ২রা কার্তিক, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ। সকাল ৬:২৭








প্রচ্ছদ » রাজনীতি

খালেদাকে রায়ের কথা বলেই কেঁদে ফেলেন ফাতেমা!

Loading...

শেষপর্যন্ত আলোচিত  ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মামলার রায় হলো আজ। গ্রেনেড হামলার ঘটনায় মতিঝিল থানায় করা হত্যা মামলায় সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরসহ ১৯ জনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। এ ছাড়া বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ ১৯ জনের যাবজ্জীবনের আদেশ দেয়া হয়েছে।

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া এ রায়ের কথা জানতে পেরেছেন কি-না তা নিয়ে অনেকের কৌতূহল রয়েছে। রায় শুনে থাকলে কী প্রতিক্রিয়া তার, তা জানার আগ্রহ অনেকের। আদালতের নির্দেশে কারাবন্দি বেগম খালেদা জিয়া বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) ৬১২ নম্বর কেবিনে চিকিৎসাধীন।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন...
Loading...

খালেদা জিয়া যে মানের ডিলাক্স কেবিনে আছেন সেগুলোতে এমনিতে ডিশ ক্যাবল সংযোগসহ টিভি থাকে। তবে বেগম জিয়া যেহেতু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত কায়েদী তাই তার রুমে টিভি নেই। ফলে টিভি দেখে রায় জানতে পারবেন না তিনি। তার নিরাপত্তার বা চিকিৎসার দায়িত্বে থাকা নিরাপত্তারক্ষী, ডাক্তার, নার্স কেউ তাকে জানালে হয়তো জানতে পারবেন তিনি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রায়ের সময় তিনি ঘুমে থাকলেও দুপুর ১২টার পর ঘুম থেকে জাগেন বেগম জিয়া। ঘুম থেকে জেগেই কলিং বেলের মাধ্যমে ফাতেমাকে ডাকেন তিনি। সেসময় রায় ঘোষণা হয়ে গেছে এবং ফাতেমাসহ খালেদা জিয়ার নিরপত্তা রক্ষীরা সকলেরই রায় সম্পর্কে অবগত।

খালেদা জিয়ার কক্ষে গিয়ে ফাতেমা প্রথমে তাকে রায়ের বিষয়ে কিছুই বলেননি। তবে ফাতেমার বিষন্ন মুখ দেখে আন্তাজ করতে পারছিলেন বেগম জিয়া। এরপর রায়ে কি হয়েছে জিজ্ঞেস করতেই কেঁদে ফেলেন ফাতেমা। বলেন, রায়ে তারেক রহমানের যাবজ্জীবন সাজা হয়েছে।

এসময় ৬১২ নম্বর কক্ষে উপস্থিত ছিলেন একজন নার্স। নাম প্রকাশ না করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত সহকারী ফাতেমার কান্নায় কিছুটা আবগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। তবে খালেদা জিয়া ছিলেন একেবারেই নির্বিকার। এমনিতেই তিনি কথা কম বলেন আর আজকে রায় নিয়ে ফাতেমার প্রতিক্রিয়ায় তিনি একটি কথাও বলেননি।

এদিকে বুধবার দুপুর ২টায় বিএসএমএমইউ ভিসির কাছে বেগম জিয়ার চিকিৎসার সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, মেডিকেল বোর্ডের সদস্যদের পরামর্শ অনুসারে বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা চলছে। বিকেলে মেডিকেল বোর্ডের সদস্যা তাকে আবার দেখতে যাবেন।